প্রচ্ছদ উপজেলার খবর প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন গ্রীণভিউ আইডিয়াল স্কুলের পরিচালক আব্দুল হাই সুইট

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন গ্রীণভিউ আইডিয়াল স্কুলের পরিচালক আব্দুল হাই সুইট

298
0

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

আমি মোঃ আব্দুল হাই সুইট,পরিচালক গ্রীনভিউ আইডিয়াল স্কুল, হাটবাকইল ,নেজামপুর ,নাচোল, চাঁপাইনবাবগঞ্জ এই মর্মে গত ২০জানুয়ারী প্রকাশিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলাদেশ সংবাদ, যুগান্তর টাইমস,রাজশাহী থেকে প্রকাশিত দৈনিক রাজশাহী সংবাদসহ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে “নাচোলে সরকারী নিষেজ্ঞা অমান্য করে চলছে গ্রীণভিউ আইডিয়াল স্কুল।” এই সংবাদ আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। যা আদৌ সত্য নয়। প্রতিবেদনটি মিথ্যা, ভিত্তিহীন, বানোয়াট ও উদ্যোশ্য প্রনোদিত। আমার প্রতিষ্ঠানের ভাবমুর্তি নষ্ঠ করার জন্য একটি কুচক্রীমহল সাংবাদিককে প্রভাবিত করে আমার ও আমার প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করেছে। যা আমার মান হানির সামিল। প্রকৃতপক্ষে ঘটনা এই যে বিগত মার্চ/২০২০ সাল থেকে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নির্দেশ মেনে শিক্ষামন্ত্রালয়ের আদেশ অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানটি শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। চলতি বছরের জানুয়ারী থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অন্যতম সফল কার্যক্রম এর মধ্যে অন্যতম যে জানুয়ারী মাসের ১তারিখে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেওয়া। সে কার্যক্রমটি বাস্তবায়ন করতে চলতি মাসের ১তারিখ থেকে আমার বিদ্যালয়ে ছাত্র/ছাত্রীদের সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভর্তি কার্যক্রম ও বই বিতরণ চলছে।এছাড়া বিদ্যালয়ের সংস্কার কাজও চলছে। এরই মধ্যে হঠাৎ করে সাংবাদিক পরিচয়ে জোহরুল ইসলাম ও আসিফ খান নামের ২জন ব্যাক্তি আমার কাছে স্কুলে এসে বলেন করোনা ভাইরাসের মধ্যে স্কুল চালাতে হলে সাংবাদিককে টাকা দিয়ে স্কুল চালাতে হবে। নাচোলে অনেক প্রাইভেট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও প্রাইভেট হোম আমাদের মাসোরাহারা দিয়ে প্রতিষ্ঠান চালাই। আমি তাদের বলি আমরাতো প্রতিষ্ঠান চালাচ্ছিনা বই বিতরণ ও ভর্তি কার্যক্রম চালাচ্ছি। তারা  কোনমতে আমার কথা বুঝার চেষ্ঠা করেনি । উল্টো তারা ২জন আমাকে হুমকি ও প্রতিষ্ঠান কিভাবে চালাই তা দেখের নেয়ার কথা বলে। এছাড়া সংবাদের আরো উল্লেখ করেছে যে ইউএনও ও  শিক্ষা অফিসারকে ম্যানেজ করে প্রতিষ্ঠান চালাচ্ছি কথা বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও মিথ্যা। আমি আদৌ এই কথা তাদের বলেনি। প্রশাসনের কাছে আমার ভাবমুর্তি নষ্ট করার জন্য তা লেখা হয়েছে। করোনা ভাইরাসের মধ্যে আমার ২০জন শিক্ষক কর্মচারী মানবেতর জীবন যাবন করলেও  সরকার ঘোষিত আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখেছিলাম এবং এখন তা চলমান। আমার ও আমার প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মনগড়া প্রতিবেদনের বিষয়টি তাৎক্ষনিক উপজেলা প্রাইভেট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি ও নাচোল উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান জনাব আবু তাহের খোকন ও সাধারন সম্পাদক এশিয়ান স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালক জনাব  ইসাহাক আলী ও আমিসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের পরিচালকগণ উপজেলা চেয়ারম্যান মহোদয় জনাব আব্দুল কাদেরকে বিষয়টি অবহিত করি। আমি এই ভিত্তিহীন সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করছি। সেই সাথে আগামী দিনে মনগড়া সংবাদ পরিবেশনে বিরত থেকে ও সঠিক সংবাদ পরিবেশনের দাবী করছি।