Home অন্যান্য পৃষ্ঠা নওগাঁয় জরুরী পাসপোর্ট ২ মাসেও মিলছেনা : বেড়েছে দালালদের দৌরাত্ম

নওগাঁয় জরুরী পাসপোর্ট ২ মাসেও মিলছেনা : বেড়েছে দালালদের দৌরাত্ম

57
0

আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:  নওগাঁয় আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে বেড়েছে ভোগান্তি। জরুরী ভিত্তিত্বে পাসপোর্ট দু’মাসেও মিলছে না। অফিসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের ভুলের খেসারত দিতে হচ্ছে সেবা গ্রহীতাদের। সেই সাথে বেড়েছে দালালদের দৌরাত্ম। চাহিদা মতো টাকা না দিলে বাড়ে হয়রানী। এমন অভিযোগ কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বিরুদ্ধে। হয়রানী বন্ধে ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহনসহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছে সেবা গ্রহীতারা। নওগাঁ প্রতিনিধি কামাল উদ্দিন টগর এর তথ্য ও চিত্র নিয়ে ডেক্স রিপোর্ট।

নওগাঁ শহরের খাস-নওগাঁ মৃধা পাড়া মহল্লার বাসিন্দা আব্দুল হান্নানের ১২ বছরের মেয়ে মালিহা তাবাসুম। হঠাৎ মেরুদন্ড বাঁকা হয়ে যায়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তার উন্নত চিকিৎসার জন্য দেশের বাহিরে নিতে হবে। জরুরী (দ্রুত) ভিত্তিত্বে পাসপোর্টের জন্য গত ২৬ আগস্টে তার ও মেয়ের জন্য ব্যাংকে ফি দিয়ে স্লিপ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ নওগাঁ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে আবেদন করেন। জরুরী ভিত্তিত্বে পাসপোর্ট দ্রুত সরবরাহের কথা থাকলেও গত ২ মাসেও সরবরাহ করা হয়নি। গত ১৮ অক্টোবরে মেয়ে মালিহা তাবাসুম এর পাসপোর্ট সরবরাহ করা হলেও সেখানে তার মায়ের নামের অক্ষর ভুল ছিল। সঠিক সময়ে পাসপোর্ট না পেয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য মেয়েকে নিয়ে দেশের বাহিরে যেতে পারছেন না। দিন দিন মেয়ের শারীরিক অবস্থার অবনতির দিকে যাচ্ছে। শুধু মালিহা তাবাসুম এর ক্ষেত্রে নয়, এমন অভিযোগ পাসপোর্ট অফিসে সেবা নিতে আসা অন্যদেরও।

পাসপোর্ট অফিসে আবেদন করার পর থেকে নানা ভাবে হয়রানীর স্বীকার হতে হচ্ছে সেবা প্রত্যাশীদের। অফিসের কর্মচারীদের যোগসাজসে দালালরা সেখানে সিন্ডিকেট গড়ে তুলেছে। দালাল ছাড়া কেউ অফিসে সেবা নিতে গেলে শুরু হয় নানা তালবাহানা ও হয়রানী। হয়রানী বন্ধে ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহনসহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছে সেবা গ্রহীতারা।
কোন ধরনের হয়রানী ও ঘুষ ছাড়া পাসপোর্ট অফিসে সেবা দেয়া হয়। তবে কিছু দালাল চিহ্নিত করা হয়েছে বলে জানান এ কর্মকর্তা।
কোন ধরনের হয়রানী ও ভোগান্তী ছাড়া পাসপোর্ট অফিস থেকে নিবিঘ্নে সেবা দেয়া হোক এমন প্রত্যাসা সচেতনদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here