Home উপজেলার খবর নাচোলে মিটু চৌধুরী সড়কের ফলক উন্মেচন

নাচোলে মিটু চৌধুরী সড়কের ফলক উন্মেচন

58
0

 

অলিউল হক ডলার,নাচোলঃ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ,নাচোল উপজেলা পরিষদের প্রথম উপজেলা চেয়ারম্যান ও নাচোল পৌরসভার প্রথম নির্বাচিত মেয়র আব্দুল মালেক চৌধুরী(মিটু চৌধুরী) নামে নাচোল বাসস্ট্যান্ড মোড় থেকে রেলস্টেশন বাজার পর্যন্ত সড়কটি মিটু চৌধুরী সড়ক নাম করণ করা হয়। মিটু চৌধুরী সড়কের ফলক উন্মোচন করেন তাঁর সহধর্মিনী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সংস্কৃত বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক প্রফেসর ড.মঞ্জুলা চৌধুরী। এ সময় অরো উপস্থিত ছিলেন তাঁর তিনকন্যা বিভা সানিয়া চৌধুরী, ইভা তানিয়া চৌধুরী ও শুভা নিনিয়া চৌধুরী ও নাতী নাতনীবৃন্দ।

আজ সোমবার বেলা ১১টায় মিটু চৌধুরী সড়কের ফলক উন্মোচন উপলক্ষ্যে নাচোল পৌরসভার আয়োজনে নাচোল জেলা পরিষদ ডাকবাংলো প্রাঙ্গনে মেয়র আব্দুর রশিদ ঝালুর সভাপতিত্বে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্টানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন নাচোল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের। সম্পানিত অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন  আব্দুল মালেক মিটু চৌধুরীর সহধর্মিনী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সংস্কৃত বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক প্রফেসর ড. মঞ্জুলা চৌধুরী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন নাচোল উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিহা সুলতানা,নাচোল সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ হাফিজুর রহমান, নাচোল মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ওবাইদুর রহমান, নাচোল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোজাম্মেল হক, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক কমান্ডার মতিউর রহমান,নাচোল দূর্নীতি দমন কমিটির সভাপতি নুরুল আওয়াল, নাচোল উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জান্নাতুন নাঈম মুন্নি, নাচোল ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস ছালাম। এছাড়া অনুষ্টানে আরো বক্তব্য রাখেন নাচোল মহিলা কলেজের প্রভাষক নুর কামাল, নাচোল খ.ম সরকারী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম,নাচোল সরকারী কলেজের অবসরপ্রাপ্ত গ্রন্থাগারিক আলাউদ্দিন আহম্মেদ বটু,নাচোল পৌরসভার প্যানেল মেয়র ফারুক আহম্মেদ বাবু,পৌর কর্মচারী মজিবুর রহমান আব্বাস|

এছাড়া আরো অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নাচোল সরকারী কলেজের শিক্ষকমন্ডলী, পৌর কাউন্সিলরবৃন্দ, এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। বক্তারা তাঁর স্মৃতি চারন করতে গিয়ে বলেন, “তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার সমভ্রান্ত চেীধুরী পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। পাকিস্তানের করাচি ইউনিভাসিটি থেকে উচ্চতর ডিগ্রী অর্জন করেও  অনুন্নত জনপদ এই নাচোলের শিক্ষা,সংস্কৃতি,রাস্তা-ঘাট, জীবন মানের উন্নয়নের জন্য তিনি এই অঞ্চলের একটি মাটির নির্মিত ঘরে বসবাস করে গেছেন। তিনি তার জীবনদশায় সততা ও নিষ্ঠাকে পুঁজি করে নিজের ও পরিবারের চিন্তা না করে নাচোলকে নিয়ে ভেবেছেন।কখনই তাঁকে দূর্নীতি, লোভ গ্রাস করতে পারেনি। কখনো  তিনি অন্যায়কে প্রশ্রয় দেননি ও মাথা নত করেননি। একজন আদর্শ মানুষ,আদর্শ শিক্ষক, আদর্শ জনপ্রতিনিধির যা যা বৈশিষ্ট্য থাকার দরকার তাই ছিল তাঁর মাঝে।”

আলোচান শেষে নাচোল বাসস্ট্যান মোড়ে মিটু চৌধুরী সড়কের ফলক উন্মোচন করা হয়। উল্লেখ্য, আব্দুল মালেক মিটু চৌধুরী  মহান স্বাধীনতার যুদ্ধের পরে অন্ধকার  নাচোলের আলো ছড়াতে তিনি সর্বপ্রথম ১৯৭২ সালে থেকে (কয়েক বছর বিরতি) ২০০৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত নাচোল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে তিনি ১৯৮৫ সাল থেকে ১৯৯০সাল পর্যন্ত নবগঠিত নাচোল উপজেলা পরিষদের চেয়াম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। পুনরায় ২য় মেয়াদে ১৯৯০সাল থেকে ১৯৯১সাল পর্যন্ত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব করেন।  এরপর তিনি নাচোল পৌরসভার প্রথম নির্বাচিত মেয়র হিসাবে ১০.০২.২০১১সাল থেকে ০১.০৩.২০১৬সাল পর্যন্ত সফলতার সহিত দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ২০১৮ সালের ২৫ নভেম্বর তারিখের ভারতের একটি বেসরকারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।