প্রচ্ছদ অপরাধ নওগাঁর আত্রাইয়ে সমসপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে অতিরিক্তি বেতন আদায়ের অভিযোগ

নওগাঁর আত্রাইয়ে সমসপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে অতিরিক্তি বেতন আদায়ের অভিযোগ

266
0

নওগাঁ প্রতনিধি : নওগাঁর আত্রাই সমসপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কাছ থকেে অতরিক্তি টাকা আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গছে। এই করোনা কালিন বিদ্যালয়ের প্রায় ৭শ’ শিক্ষার্থীর কাছ থেকে বেতনের সঙ্গে অতিরিক্তি টাকা আদায়ের ক্ষোভ প্রকাশ করছেনে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধকি শিক্ষার্থীর অভিভাবরা জানান,৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্র্রেণি পর্যন্ত বেতন যথাক্রমে ৬০,৭০, ১শ’টাকা নিদ্ধারণ থাকলেও আদায় করা হচ্ছে অতিরিক্তি টাকা।৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে বিভিন্ন অজুহাতে বেতন ৫০০টাকা-৭০০টাকা আদায় করা হচ্ছে এবং ৯ম ও ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের কাছ থকেে ৮শ’ থেকে ১২শ, টাকা।পরীক্ষার খাতাসহ প্রশ্নপত্র ফটোকপির দোকান থেকে সংগ্রহ করলেও এ্যাসাইনমেন্ট পরীক্ষার নামেও প্রত্যেক শিক্ষার্থীদেরর কাছ থেকে নেওয়া হয়। বিষয় প্রতি ২০টাকা হারে। জমা নেয়া হয় নি। বেতন সহ অন্যান্য ফি পরিশোধের ব্যর্থ শিক্ষার্থীদের এ্যাসাইনমেন্ট খাতা। যে সকল শিক্ষার্থী গত (১৫ ডিসেম্বার) মঙ্গলবারের মধ্যে বেতন সহ যাবতীয় ফি পরশিোধে ব্যর্থ শিক্ষার্থীদের উপরে ক্লাশে উন্নতি করা হবে না্। সব জানিয়ে দিয়ে বিদ্যালয় র্কতৃপক্ষ।অতরিক্তি অর্থ আদায়ে গত মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে স্থানীয় কয়কজন সাংবাদিকদের কাছে ক্ষোভ প্রকাশ করনে এ্যাসাইনমেন্ট খাতা জমা দিতে আসা বিদ্যালয়ে ২৫-৩০জন শিক্ষার্থী। নাম প্রকাশ অনিচ্ছুক কয়কেজন শক্ষার্থী বললে,বেতনেরর বাইরে অন্যান্য ফি দিতে অস্বীকৃতরি কারণে জমা দেওয়া হয়নি তাদের এ্যাসাইনমেন্ট খাতা।একজন শিক্ষার্থীদের বাবা বললে এই স্কুলরে অধকিাংশ শক্ষর্িাথীর অভভিাবক নম্নি আয়রে।কউে দনিমজুরী করে আবার কউে কউে ভ্যানগাড়ি চালায়।এদরে অনকেরেই ধাযকৃত টাকা দয়ো সম্ভব না। করোনা কালীন এই সময় অনকেইে আয়-বানজ্যিনাই। এ ব্যাপারে সমসপাড়া উচ্চ বদ্যিালয়রে প্রধান শক্ষিক মোহা্ম্মদ রফকিুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেনন জানুয়ারী থেকে ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের বকেয়া বেতন আদায় করা হচ্ছে।যাহা নীতিমালার আলোকেই ছাত্র-ছাত্রীদের নিকট থেকে আদায় করা হচ্ছে। টেউশন ফি ছাড়া অতরিক্তি কোন টাকা আদায় করা হচ্ছে না। এ বিষয়ে স্কুল ম্যানিজিং কমিটির সভাপতি মোহম্মদ শহিদুল ইসলাম মুঠো ফোনে বলেন,সরকারী নিয়ম অনুযায়ী টিউশন ফি নেওয়ার কথা, তবে এর বাইরে অতিরিক্তি অর্থ আদায় করার বিষয় আমার জানা নাই।
এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমকি শিক্ষা কমর্কতা মোহম্মদ আব্দুস ছালাম বলেন বিষয়টি আমি জানলাম নিতিমালার বাইরে স্কুল কতৃপক্ষ অতিরিক্তি অর্থ নেওয়া হলে সরজমিনে অভিযোগ বিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।