প্রচ্ছদ অন্যান্য পৃষ্ঠা গোমস্তাপুরে অটো চালক জুয়েল মার্ডি হত্যাকান্ডে জড়িত আরও একজনের স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি

গোমস্তাপুরে অটো চালক জুয়েল মার্ডি হত্যাকান্ডে জড়িত আরও একজনের স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি

1451
0

গোমস্তাপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে অটো চালক জুয়েল মার্ডি (২০) হত্যাকান্ডে জড়িত আরও একজন আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এ ঘটনায় গত ১৫ মে আটক অপর আসামী উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের শিবনগর গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে সনি (১৯) গত ১৬ মে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দেয় । এর পূর্বে ঘটনায় আটক জিয়াউর (৩০) গত ১৩ মে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোমস্তাপুর থানার ওসি (তদন্ত) সেলিম রেজা জানান, গত ৭ মে সকালে রহনপুর ইউনিয়ন তেঁতুলতলা গ্রামের একটি ধান ক্ষেত থেকে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর যুবক জুয়েল মার্ডি (১৭) লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

 

নিহত ওই যুবক উপজেলার রাধানগর ইউনিয়ন বেলডাঙ্গা গ্রামের সুধির মার্ডির ছেলে। এ ঘটনায় ওই যুবকের ভাই সুজল মার্ডি বাদী হয়ে অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে গোমস্তাপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। ঘটনার পরের দিন হত্যাকান্ডের শিকার ওই যুবকের অটো শিবগঞ্জ এলাকায় বিক্রি করতে গিয়ে স্থানীয় লোকজনের হাতে আটক হয় জিয়াউর। পরে স্থানীয়রা তাকে শিবগঞ্জ থানা পুলিশের নিকট সোপর্দ করে। সেদিনই শিবগঞ্জ থানা পুলিশ তাকে গোমস্তাপুর থানা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করে। গোমস্তাপুর থানা পুলিশ তাকে আদালতে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করলে আদালত ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। রিমান্ড শেষে তাকে আদালতে হাজির করলে সে হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়। তার জবানবন্দি অনুযায়ী গত ১৫ মে সনি (১৯) কে আটক করে ১৬ মে আদালতে ১৬৪ ধারায় হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে।

 

এদিকে বাদী সুজল মার্ডি জানান আমরা ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী পরিবারের সন্তান। আমার ছোট ভাই জুয়েল মার্ডিকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। হত্যাকান্ডে জড়িত এবং আটককৃতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।