প্রচ্ছদ অন্যান্য পৃষ্ঠা ভোলাহাটে কুরিয়ার সার্ভিসগুলো অনিয়মে ভরপুর; অতিষ্ঠ অনলাইন ব্যবসায়ীরা

ভোলাহাটে কুরিয়ার সার্ভিসগুলো অনিয়মে ভরপুর; অতিষ্ঠ অনলাইন ব্যবসায়ীরা

233
0
বি.এম রুবেল আহমেদঃ চাঁপাই নবাবগঞ্জের ভোলাহাটে কুরিয়ার সার্ভিসগুলো অনিয়মে ভরপুর হয়ে উঠেছে। এ নিয়ে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে উপজেলার একঝাঁক তরুণ অনলাইন আম ব্যবসায়ী। করোনাকালীন অবসর সময়ে শিক্ষিত বেকার এবং নিয়মিত কিছু ছাত্র পার্টটাইম ব্যবসা হিসেবে অনলাইনে সম্পৃক্ত হয়। কিন্তু উপজেলায় অবস্থিত স্থায়ী এবং অস্থায়ী কিছু নামে-বেনামে গড়ে উঠা কুরিয়ার সার্ভিসগুলোর সেবার মান একেবারে তলানিতে চলে যাওয়ায় চরম ভোগান্তির স্বীকার হচ্ছে অনলাইন ব্যবসায়ীরা। সরেজমিন ঘুরে এর সত্যতা পাওয়া  গেছে। অনলাইন আম ব্যবসায়ী হাসিবুর রহমান নিলয়, বাদিরুল ইসলাম, ফাহাদ হোসেন শুভ, মোজাম্মেল হক সহ অনেক অনলাইন আম ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বললে তারা কুরিয়ার সার্ভিসগুলোর উপর ব্যাপক অভিযোগ তুলেন। অধিকাংশরাই  বলেন যেখানে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে পার্সেল পৌঁছে যাওয়ার কথা সেখানে ৭২-৯৬ ঘণ্টা অর্থাৎ ৪/৫ দিন সময় লাগছে। যার কারনে প্যাকেটের মধ্যে থাকা আমগুলো পেকে পঁচে যাওয়ার উপক্রম। প্যাকেট থেকে আম বের করা থেকে শুরু করে আম হারিয়ে যাওয়ার অভিযোগ রয়েছে কুরিয়ার সার্ভিসগুলোর বিরুদ্ধে। তবে কুরিয়ার সার্ভিসগুলোর এজেন্সিগুলোর সাথে কথা বললে তারা তাদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করেন এবং বলেন কোন কোন সময় প্যাকেট পৌঁছাতে একটু সময় বেশি লাগে। এক্ষেত্রে উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন উপজেলরা অনলাইন আম ব্যবসায়ী সহ উপজেলার সকল স্তরের মানুষ।