প্রচ্ছদ জেলার খবর সংবাদকর্মী থেকে ঠাকুরগাঁওয়ের প্রথম নারী মেয়র আ’লীগের বন্যা, ফল বর্জণ বিএনপির

সংবাদকর্মী থেকে ঠাকুরগাঁওয়ের প্রথম নারী মেয়র আ’লীগের বন্যা, ফল বর্জণ বিএনপির

261
0
ফিরোজ সুলতান, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : সংবাদকর্মী থেকে ঠাকুরগাঁওয়ের প্রথম নারী মেয়র হলেন আঞ্জুমানা আরা বেগম বন্যা । দলীয় প্রার্থী বাছাইয়ের দিন যখন আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয় তখন জেলার বেশিরভাগ মানুষই মহিলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেত্রী ও জাতীয় দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি বন্যার মনোনয়ন পাওয়াকে গুজব বলেই মনে করেছিল।

মূলত তিনি হ্যাভিওয়েট তো ছিলেনই না, ছিলেননা কোন আলোচনাতেও। তবে গতবারের নৌকা মার্কার প্রার্থী জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি তাহমিনা আখতার মোল্লা হ্যাভিওয়েট প্রার্থী হিসেবে নৌকা মার্কার প্রার্থীতা পাওয়ার দৌড়ে এগিয়ে থাকলেও চূড়ান্ত প্রার্থীতা পান আঞ্জুমান আরা বেগম বন্যা। ২৬ হাজার ৪শ ৯৪ ভোট পেয়ে ঠাকুরগাঁও পৌরসভায় বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন তিনি । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি বিএনপি প্রার্থী শরিফুল ইসলাম শরীফ পেয়েছেন ৫ হাজার ৩শ ৩৩ ভোট। অপর প্রার্থী ইসলামী আন্দোলনের আনোয়ার হোসেন (হাতপাখা) প্রতীক পেয়েছেন ১ হাজার ৬৩ ভোট।

চতুর্থ ধাপে চলমান পৌরসভা নির্বাচনে ঠাকুরগাঁওয়ে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) এর মাধ্যমে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় গত ১৪ই ফেব্রুয়ারি রোববার।  ভোটের দিন বন্যা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ হয়েছে বলে দাবি করলেও ভোটের দিন সকাল সাড়ে ১১ টায় জেলা বিএনপি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ভোট জালিয়াতি ও কেন্দ্র দখলের অভিযোগ এনে অগ্রিম ফলাফল বর্জনের ঘোষণা দেন বিএনপি মনোনিত প্রার্থী শরীফ এবং জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক ও পৌর মেয়র মির্জা ফয়সল আমিন।

অন্যদিকে ওয়ার্ডভিত্তিক হিসেবে ১নং ওয়ার্ডে জামিরুল ইসলাম (উটপাখি), ২ নং ওয়ার্ডে নজরুল ইসলাম (উটপাখি), ৩নং ওয়ার্ডে ওয়ালিউর রহমান ওলি (পানির বোতল), ৪নং ওয়ার্ডে সুদাম সরকার (উটপাখি), ৫নং ওয়ার্ডে আতাউর রহমান (ঢেরস), ৬ নং ওয়ার্ডে আবুল হাসান জামান বাবু (টেবিল ল্যাম্প), ৭নং ওয়ার্ড একজন কাউন্সিলর মারা যাওয়ায় স্থগিত রয়েছে, ৮নং ওয়ার্ডে কাইয়ুম চৌধুরী (উটপাখি), ৯নং ওয়ার্ডে দোলন কুমার মজুমদার (পাঞ্জাবি), ১০ নং ওয়ার্ডে জাহাঙ্গীর হোসেন (ঢেরস), ১১নং ওয়ার্ডে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নুর ইসলাম ও ১২ নং ওয়ার্ডে একরামুদ্দৌলা সাহেব (ডালিম) প্রতীক নিয়ে বেসরকারীভাবে জয়লাভ করেছেন।
এছাড়াও সংরক্ষিত ১-৩ নং ওয়ার্ডে নাজিরা আক্তার স্বপ্না (আনারস), ৪-৬ নং ওয়ার্ডে আয়েশা বানু পারুল (আনারস), ৭-৯ নং ওয়ার্ডে দ্রৌপদী দেবী আগারওয়ালা (অটোরিক্সা) ও ১০-১২ নং ওয়ার্ডে রুনা লায়লা (আনারস) প্রতীকে বেসরকারীভাবে জয়লাভ করেছেন।

উল্লেখ্য,নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও ইসলামী আন্দোলন সহ ৩ জন মেয়র প্রার্থী এবং ৫৬ জন কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বদ্বিতা করেন। ১২টি ওয়ার্ডের মোট ২১টি কেন্দ্রে ভোট গহেণ অনুষ্ঠিত হয়। ঠাকুরগাঁও পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ৬০ হাজার ৭২৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছে ২৯ হাজার ৭১২ জন ও মহিলা ভোটার রয়েছে ৩১ হাজার ১৫ জন।