প্রচ্ছদ অন্যান্য পৃষ্ঠা ভোলাহাটে ভারতীয় নাগরিকের লাশ হস্তান্তর করল বাংলাদেশ।     

ভোলাহাটে ভারতীয় নাগরিকের লাশ হস্তান্তর করল বাংলাদেশ।     

43
0

বি.এম রুবেল আহমেদঃ মহানন্দা নদীতে পাওয়া ভারতীয় নাগিরেকর লাশ বিএসএফের নিকট হস্তান্তর করেছে বিজিবি। ৭ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যে ৭ টার দিকে ভোলাহাট বজরাটেক কানারহাট মহানন্দা নদীর তীরে বিএসএফের নিকট লাশ হস্তান্তর করেন বিজিবি ।

৬ সেপ্টেম্বর সোমবার সকাল ১০টার ভোলাহাট উপজেলার দলদলী ইউনিয়নের পীরগাছী নামক স্থানে মহানন্দা নদীতে ভারতের দিক থেকে ভেসে আসা হাফপ্যান্ট পরা এক অজ্ঞাত নামা ছেলে শিশুর লাশ তীরে দেখতে পায় স্থানীয়রা। পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

বিজিবি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, গত ৬ সেপ্টেম্বর আনুমানিক বিকেল ৫ টার দিকে অত্র ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ জেকে পোলাডাংগা বিওপির দায়িত্বর্পূণ এলাকার সীমান্ত পিলার ২০১/৫৭-এস এর বিপরীতে
প্রতিপক্ষ ৪৪ ব্যাটালিয়ন বিএসএফ এর মনষামাথা ক্যাম্পের আইএনটি মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জেকে পোলাডাংগা কোম্পানী কমান্ডারকে জানান যে, ভারতের অভ্যন্তরে মহানন্দা নদীতে ১০-১২ বছরের ১টি ছেলে পানিতে পড়ে হারিয়ে গেছে। আপনারা যদি ছেলেটির কোন সন্ধান পান তাহলে আমাদেরকে জানাবেন। তাৎক্ষণিক কোম্পানী কমান্ডার স্থানীয় মেম্বারকে বিষয়টি জানালে মেম্বার বলেন যে, ভোলাহাট উপজেলায় নদীতে ১ টি লাশ পাওয়া গেছে।

পরর্বতীতে কোম্পানী কমান্ডার ভোলাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লাশের ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, সীমান্ত পিলার ২০২ মেইন হতে আনুমানিক ০৫ কিঃমিঃ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে পীরগাছি নামক স্থানে মহানন্দা নদীতে গত ৬ সেপ্টেম্বর সোমবার সাড়ে ১১ টার দিকে লাশটি পাওয়া যায়। লাশটি ময়না তদন্ত শেষে সীমান্ত পিলার ২০১/৩৯-এস এর নিকট সন্ধ্যা ৭ টার দিকে বিএসএফ এর নিকট হস্তান্তর করা হয়। এ ব্যাপারে রহনপুর ব্যাটালিয়ন (৫৯ বিজিবি) এর অধিনায়ক লেঃ র্কণেল মোঃ আমীর হোসেন
মোল্লা, পিএসসি বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

লাশ হস্তান্তরের সময় উপস্থিত ছিলেন ভোলাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মাহবুবুর রহমান ও ভারত মালদহ থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা